পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় নীলফামারীর ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেওয়া দুই নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে পদ্মা ও সেতু। শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অপারেশন থিয়েটারে পর পর দুই জন প্রসূতি মা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এই দুই নবজাতকের জন্ম দেন। বর্তমানে দুই নবজাতক ও তাদের মায়েরা সুস্থ আছেন।

নবজাতক পদ্মা উপজেলার ছোটরাউতা গ্রামের আব্দুল আলিম ও রোজিনা বেগমের মেয়ে। আর সেতু দক্ষিণ আমবাড়ি গ্রামের সাদিক ইমরান ও আরফানা আক্তারের ছেলে।
 
হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. তাহমিনা জানান, তাদের খুব ইচ্ছে ছিল পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান দেখার। কিন্তু ওই সময় তারা অস্ত্রোপচার করেছিলেন। অনুষ্ঠান দেখতে না পারায় তারা দুই নবজাতকের নাম পদ্মা আর সেতু রাখার প্রস্তাব দেন তাদের অভিভাবকদের। তারাও মেনে নেন। নবজাতকদের নামকরণের পর হাসপাতালের সবাই মিষ্টিমুখ করেন।  

সেতুর বাবা আরফান সাদিক (৩০) জানান, আমার প্রথম সন্তান সেতু। বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভের সাথে মিল রেখে সন্তানের নাম রাখা আমার কাছে খুবই গর্বের।

পদ্মার মা রোজিনা বেগম বলেন, আমি খুবই খুশি, মেয়ের নাম পদ্মা রাখায়। আপনারা দোয়া করবেন, আমার মেয়ে যেন বড় হয়ে দেশের জন্য কাজ করতে পারে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা. রায়হান বারী বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের কাছে গর্বের । আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেছেন।  আর আমরা একাত্মতা ঘোষণা করে নবজাতক দুটির নাম রেখেছি পদ্মা-সেতু।