স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেখতে গিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন চাঁদপুরের কচুয়ার ডুমুরিয়া গ্রামের রিয়াদ হোসেন (২৩)। গত রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে মাওয়া প্রান্তে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রিয়াদ উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামের আলী আহম্মেদ মেম্বার বাড়ির দুলাল মিয়ার ছেলে। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি ফার্মে চাকরি করতেন। তার স্ত্রী ও ২ বছরের একটি পুত্রসন্তান গ্রামেই থাকত।

নিহতের স্ত্রীর জান্নাত আক্তার জানান, রোববার মধ্যরাতে স্বামীর সঙ্গে আমার শেষ কথা হয়। এ সময় রিয়াদ বলেছিল ‘সে তার কয়েক বন্ধুসহ মোটরসাইকেলে করে ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু দেখতে যাচ্ছে।’ তারপর রাত ৩টার দিকে অপরিচিত এক নাম্বার থেকে কল দিয়ে জানায়, ‘রিয়াদ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে।’

রিয়াদের বাবা দুলাল মিয়া জানান, ছেলে রিয়াদ হোসেনের লাশ ঢাকার মনোয়ারা হাসপাতালে আছে। এ খবর পেয়ে মনোয়ারা হাসপাতালে ছুটে যাই। সেখানে গিয়ে জানতে পারি, রিয়াদ তার বন্ধুদের সঙ্গে মোটরসাইকেলে পদ্মা সেতু দেখতে যায়। যাওয়ার পথে রিয়াদের মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে রেলিংয়ে সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ সময় তার বন্ধুরা দ্রুত তাকে ঢাকার মনোয়ারা হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোমবার দুপুরে রিয়াদের লাশ তার নিজ গ্রাম ডুমুরিয়ায় নিয়ে আসলে মা, বাবা, স্ত্রী ও সন্তানসহ স্বজনদের আহাজারিতে বাতাস ভারী হয়ে উঠে। তার অকাল মৃত্যুতে বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়স্বজনের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সোমবার বিকেলে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়েছে।