সারাদেশে রথযাত্রায় এক দিনের সরকারি ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন)। 

মঙ্গলবার ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দির মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইসকন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্পাদক চিন্ময় কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন— ইসকন প্রবর্তক মন্দিরের অধ্যক্ষ লীলারাজ গৌর দাস, জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার, মহানগর পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সেন উজ্জ্বল, নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ আচার্য্য, মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক দারুব্রহ্ম দাস, ইসকন প্রবর্তক মন্দির পরিচালনা কমিটির সদস্য রূপেশ্বর গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী, দিব্যনিমাই দাস ব্রহ্মচারী, স্বতন্ত্র গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী, পরমানন্দ নিতাই দাস ব্রহ্মচারী, নিত্য নারায়ণ দাস ব্রহ্মচারী, সুধামা গৌর দাস ব্রহ্মচারী, ইসকনের মিডিয়া সমন্বয়ক বিপল্গব পার্থ, সনাতনী জাগরণ সংঘের সভাপতি কাঞ্চন আচার্য্য, জাগো হিন্দু পরিষদ চট্টগ্রাম জেলা শাখার সভাপতি রুবেল কান্তি দে, কিশোর শ্যাম দাস ব্রহ্মচারী, উজ্জ্বল নিলাম্বর দাস ব্রহ্মচারী, সুচারু কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী, রাধাকান্ত কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী, বিশ্বরূপ কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী, প্রাণ গোপিনাথ দাস প্রমুখ।

এ ছাড়া সংবাদ সম্মেলন থেকে সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত মঠ মন্দির সরকারি অর্থায়নে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পুনর্নির্মাণ, দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষা ও সংরক্ষণ, প্রতিটি উপজেলায় সরকারি অনুদানে কেন্দ্রীয়ভাবে মন্দির নির্মাণ, ঐতিহ্যবাহী তীর্থস্থানগুলো রক্ষা ও সংরক্ষণ, সাম্প্রদায়িক হামলা বন্ধে কঠোর আইন ও শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে হিন্দুদের হয়রানি বন্ধ ও জেলে থাকা নিরপরাধীদের নিঃশর্ত মুক্তি, হিন্দুদের টার্গেট করে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের হয়রানি বন্ধ ও শিক্ষাব্যবস্থা রক্ষায় যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১ জুলাই শুক্রবার বিকেল ৩টায় ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরের উদ্যোগে প্রবর্তক মোড় থেকে ঐহিত্যবাহী শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেলে রথযাত্রার উদ্বোধন করবেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ ছাড়া শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান, ভারতীয় দূতাবাসের সহকারী হাইকমিশনার ডা. রাজীব রঞ্জনসহ অন্যরা অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।