ভোলার চরফ্যাসনের শশীভূষণ থানার এওয়াজপুরের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য শাহাবুদ্দিন পন্ডিতের বিরুদ্ধে শাহিন নামে এক যুবককে একটি বাড়িতে ১৫ ঘণ্টা আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে। 

মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় সংবাদকর্মীদের হস্তক্ষেপে তাঁকে মুক্ত করা হয়। শাহিন ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের শহিজলের ছেলে।

শাহিনের অভিযোগ, সোমবার রাতে তিনি এওয়াজপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডে তাঁর মামা আবু তাহেরের বাড়িতে বেড়াতে যান। রাতে তিনি উঠানে বসে বাড়ির সবার সঙ্গে গল্প করছিলেন। এ সময় ইউপি সদস্য শাহাবুদ্দিন লোকজন নিয়ে এসে তাঁকে মারধর করে তুলে নিয়ে যান এবং একটি বাড়িতে আটকে রাখেন। 

এ প্রসঙ্গে শাহাবুদ্দিন বলেন, শাহিন ওই বাড়িতে এসে এক তরুণীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়াচ্ছেন- এমন খবরে স্থানীয়রা তাকে আটক করেছেন। তিনি আটক করেননি। ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম খোকন জানান, খবর পেয়ে ইউপি সদস্যকে ওই যুবককে ছেড়ে দিতে বলেছি। পরে ওই যুবকের অভিভাবক এসে তাকে নিয়ে গেছেন।


বিষয় : শশীভূষণ থানা এওয়াজপুর আটকে রাখার অভিযোগ

মন্তব্য করুন