রাজধানীর হাইকোর্ট এলাকায় শিক্ষা ভবনের সামনে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুই জন।

নিহতের নাম মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (২১)। তিনি রাজধানীর বিএফ শাহীন কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার জন্য কোচিং করছিলেন। আহতরা হলেন- মোহাইমিনুলের দুই বন্ধু মো. মেহেদী হাসান ও মো. শাকিল।

শাহবাগ থানার এসআই মাহমুদুল হাসান জানান, ক্যান্টনমেন্টের কচুখেত এলাকায় থাকতেন সিফাত। মঙ্গলবার রাতে কয়েকটি মোটরসাইকেলে তারা পাঁচ-ছয়জন বন্ধু পুরান ঢাকায় যান। সেখানে খাওয়া-দাওয়া সেরে তারা ফিরছিলেন। পথে শিক্ষা ভবনের সামনে দুর্ঘটনাটি ঘটে। এতে সিফাত নিহত এবং তার মোটরসাইকেলে থাকা দু'জন সামান্য আহত হন। ঘটনার পরপরই ট্রাকটি জব্দ এবং চালক মাসুম হোসেনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

সিফাতের বন্ধু ফুয়াদ বলেন, পুরান ঢাকা থেকে ফেরার পথে আমরা মোটরসাইকেল চালিয়ে সামনে চলে আসি। পরে জানতে পারি সিফাত মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় পড়েছে। তাদের মোটরসাইকেলের সঙ্গে প্রথমে আইল্যান্ডের ধাক্কা লাগে। এতে তারা রাস্তায় ছিটকে পড়ে। তখন একটি ট্রাক সিফাতকে চাপা দিয়ে চলে যায়। পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর পেয়ে ঢাকা মেডিকেলে গিয়ে দেখি সিফাত আর বেঁচে নেই।

সিফাতের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া এলাকায়। তার বাবার নাম হাফেজ খন্দকার।