রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাকের জমি দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে অধ্যাপক অরুণ বসাকের জমি ফিরিয়ে দিতে প্রশাসনকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়। একই সঙ্গে সাভারে শিক্ষক উৎপল কুমারকে হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি এবং নড়াইলের শিক্ষক স্বপন কুমারকে লাঞ্ছনার প্রতিবাদও জানানো হয়।

এ সময় পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সালেহ হাসান নকীব বলেন, অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাকের জমি দখলের ঘটনাটি সমাজের সমন্বিত ব্যর্থতার উপসর্গ। আমাদের বস্তুগত উন্নয়ন হয়েছে, মানবিক উন্নয়ন হয়নি। মানবিক উন্নয়ন ছাড়া সব উন্নয়ন ব্যর্থ।

বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী বলেন, সাম্প্রদায়িক চেহারা দিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের ওপর বিশেষ করে শিক্ষকদের ওপর হামলা করা হচ্ছে। যারা এই কাজ করছে তারা যে খুব ধার্মিক, তা নয়। তারা এ কাজ করছে। কারণ কোনো না কোনোভাবে এর সঙ্গে সম্পদ জড়িয়ে আছে এবং সেটাকে সাম্প্রদায়িক চেহারা দিচ্ছে।

চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থী মনু মোহন বাপ্পার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা, মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক শুভ্রা রানী চন্দ, মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অমিত কুমার দত্ত, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর আহ্বায়ক রনজু হাসান, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি শাকিলা খাতুন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক রিদম শাহরিয়ার প্রমুখ।

অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাকের বাড়ির একটি অংশ তাঁরই প্রতিবেশী ফেরদৌস ১৯ বছর ধরে দখল করে রেখেছেন। আদালত জমিটি ফেরত দিতে নির্দেশ দিলেও তিনি পাননি। সম্প্রতি বিষয়টি গণমাধ্যমে ওঠে এলে রাজশাহীর শিক্ষক সমাজ ক্ষোভ ফুঁসে ওঠে।