রাজধানীর পল্লবী এলাকায় ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেলে যাত্রী সেজে উঠে চালককে গলা কেটে হত্যা করেছে এক দুর্বৃত্ত। নিহত চালকের নাম রাজা মিয়া (৩৪)। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে পল্লবীর ১২ নম্বর সেকশনের ধ-ব্লকে এ ঘটনা ঘটে। এরপর কাওসার আহমেদ নামে ওই ছিনতাইকারী মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে সাভারের বিরুলিয়া এলাকার চেকপোস্টে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় ছিনতাই করা মোটরসাইকেল।

পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম সমকালকে বলেন, মঙ্গলবার রাত পৌনে ২টার দিকে ১৫০ টাকা ভাড়ায় পল্লবীর কালশী থেকে গাবতলী যাওয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে ওঠে কাওসার। তার নির্দেশনা অনুযায়ী চালক ধ-ব্লকের মমতা ফ্যাশন টেইলার্সের সামনে যান। জায়গাটি নিরিবিলি ও অন্ধকার ছিল। তখন সে পেছন থেকে এন্টিকাটার দিয়ে চালকের গলায় পোচ দেয়। চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে গেলে সে মোটরসাইকেল, মোবাইল ফোন ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। আর ঘটনাস্থলেই মারা যান রাজা মিয়া।

ওসি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে চালকের লাশ উদ্ধার করে। সেসঙ্গে পালিয়ে যাওয়া দুর্বৃত্তকে গ্রেপ্তারে বিভিন্ন স্থানে তথ্য পাঠানো হয়। পরে বিরুলিয়া চেকপোস্টে কাওসারকে আটক করে সাভার থানার পুলিশ। সেখানে কর্তব্যরতরা তাকে থামার নির্দেশ দিলে সে মোটরসাইকেল ঘুরিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এতে সংশ্নিষ্টদের সন্দেহ হওয়ায় তাকে আটকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মোটরসাইকেলে লেগে থাকা রক্তের বিষয়ে জানতে চাইলে সে এলোমেলো উত্তর দেয়। সে জানায়, দুর্ঘটনায় চালক নিহত হয়েছেন, এই সুযোগে সে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল। তবে জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে মূল ঘটনা বেরিয়ে আসে।

পল্লবী থানা পুলিশ জানায়, মোবাইল ফোনের অ্যাপভিত্তিক পরিবহন সেবার (পাঠাও, উবার) পাশাপাশি চুক্তিভিত্তিক ভাড়ায় মোটরসাইকেলে যাত্রী বহন করতেন রাজা মিয়া। তিনি পল্লবী-৭ নম্বর সেকশনে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলায়। তার বাবার নাম মফিজ মিয়া।

কাওসারকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, সে হানিফ পরিবহনের বাসে চালকের সহকারী হিসেবে কাজ করত। ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়ায় সাম্প্রতিক সময়ে সে অপরাধে জড়ায় বলে দাবি করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় সে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে। সেই অনুযায়ী মঙ্গলবার রাতে পল্লবী এলাকায় রাজা মিয়াকে টার্গেট করে। তার সঙ্গে আগে থেকে কোনো পরিচয় ছিল না। হত্যায় ব্যবহূত এন্টিকাকটার উদ্ধার করা হয়েছে।