কক্সবাজারে ‘বাফুফে সেন্টার অব এক্সিলেন্স’-এর জমি হস্তান্তর করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বরাদ্দকৃত জমির দলিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। 

বাফুফেকে ট্রেনিং সেন্টারের জমির দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু-ঈদগাঁও) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ সাইমুম সরওয়ার কমল, ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব আলী রেজা, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ, বাফুফে সহসভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক, সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাঈম সোহাগ, সদস্য বিজন বড়ুয়া প্রমুখ।

ফিফার অর্থায়নে ২০ একর জায়গার ওপর নির্মিত হবে ট্রেনিং সেন্টারটি। সেখানে আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম ছাড়াও নির্মিত হবে আধুনিক ট্রেনিং গ্রাউন্ড। জমি বুঝে পাওয়ায় এখন বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে সব দলিলাদি পাঠাবে ঘরোয়া ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাফুফে। 

সবকিছু যাচাই-বাছাই করে ফিফা পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে। ফিফার ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় ৩৫ কোটি টাকা পাবে ফুটবল ফেডারেশন। আগামী এক বছরের মধ্যে পর্যটন নগরী কক্সবাজারে দৃশ্যমান হবে ফুটবলের আধুনিক সুযোগ-সুবিধার প্রতিষ্ঠান ‘বাফুফে সেন্টার অব এক্সিলেন্স’।