মহামারি করোনাভাইরাসের সনদ জালিয়াতির মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী।

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদের বিরুদ্ধে ২০২০ সালে করোনাভাইরাসের ল্যাব পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে জালিয়াতির বিস্তর অভিযোগ ওঠে। পরে ওই অভিযোগের ভিত্তিতে একই বছরের ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় অভিযান চালায় র‌্যাব।

অভিযানে করোনার ভুয়া পরীক্ষার রিপোর্ট, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়ম উঠে আসে। এরপর ওই বছরের ৭ জুলাই রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। বিচারিক আদালতে একাধিকবার জামিন আবেদন নামঞ্জুর হওয়ার পর তিনি হাইকোর্টে ওই মামলায় জামিন চেয়ে আবেদন করেন। তার বিরুদ্ধে অস্ত্রসহ আরও একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে।