ময়মনসিংহে ত্রিশালের যুবক মো. তাইজুদ্দিন (২২) হত্যা মামলার ১০ বছরের মাথায় তিন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদেরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) দুপুরে ময়মনসিংহ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক হেলাল উদ্দিন এই রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- অহিদ মিয়া (৩৮), মোবারক হোসেন (৩৬) এবং মজনু মিয়া (২৬)। দণ্ডপ্রাপ্তরা সবাই ত্রিশালের কোনাবাড়ী ও সাখুয়া গ্রামের বাসিন্দা।

দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে আসামি মোবারক হোসেন পলাতক রয়েছেন। তবে অপর দুই আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করা হয় বলে জানিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন খান।

তিনি আরও জানান, ২০১২ সালের ১১ আগস্ট ত্রিশালের কোনাবাড়ী নদীরপাড় এলাকা থেকে তাইজুদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরবর্তীতে নিহতের বাবা নূরুল ইসলাম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার তদন্তে এবং স্বাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তিন আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালে আদালতে হত্যার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আসামি মোবারক হোসেন। তাতে হত্যায় নিজে সম্পৃক্ত থাকার দায় স্বীকার করে ঘটনার বর্ণনা দেয় আদালতে। ছাগল চুরি করা ও সে ঘটনা প্রকাশ করে দেওয়াকে কেন্দ্র করে হত্যাকাণ্ড ঘটে। তাইজুদ্দিনকে গলাটিপে হত্যার পর কোনাবাড়ি কালভার্টের নিচে ফেলে রাখা হলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।