পারিবারিক বিবাদ মীমাংসার কথা বলে বন্ধুর স্ত্রীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার সাজ্জাদ আলভী শোভনদী ইউনিয়নের আদ মল্লপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। উপজেলা যুবদলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত তিনি। তার বিরুদ্ধে গত ১৬ জুলাই থানায় ধর্ষণ মামলা করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর প্রায় চার বছর আগে বিয়ে হয়। তার এক ছেলে রয়েছে। তার স্বামীর বন্ধু সাজ্জাদ তাদের ভাড়া বাসায় আসা-যাওয়া করতেন। স্বামীর সঙ্গে গৃহবধূর বিবাদ হলে অনেকবার মীমাংসা করেছেন তিনি। সম্প্রতি গৃহবধূর সঙ্গে স্বামীর আবারও বিবাদ হয়।

বিষয়টি মীমাংসার জন্য গত ১৬ জুলাই বেলা ২টার দিকে পটিয়া বাসস্টেশন এলাকায় আলভী অ্যান্ড কোং নামের দোকানে যেতে বলেন সাজ্জাদ। তার কথামতো সেখানে গেলে গৃহবধূকে কৌশলে ভাড়া বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। ভাড়া বাসায় নেওয়ার পর তাকে ধর্ষণ করেন আসামি।

পটিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম সমকালকে বলেন, অভিযোগের পর তাৎক্ষণিক আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গৃহবধূকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।