পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নুরে আলমের মরদেহ নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে আনা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গ থেকে তার মরদেহ নয়াপল্টনে পৌঁছায়। 

এদিকে নুরে আলমের জানাজায় অংশ নিতে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হওয়া বিএনপির নেতা-কর্মীরা ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ করছেন। 

এর আগে আজ সকাল থেকে বিএনপির অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতা কর্মীরা ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে নয়াপল্টনে জড়ো হন। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার জানাজা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে জানাজাকে কেন্দ্র করে নয়াপল্টনের আশপাশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের অন্যান্য দিনের তুলনায় বেশি উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই সারাদেশে লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালীন পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের সময় নুরে আলম গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাকে রাজধানীর কমফোর্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার তিনি মারা যান।