খুলনার পাইকগাছায় একটি অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর পাশেই পকেটমারির অভিযোগে গ্রেপ্তার ইসহাক সরদারকে সাত দিন রিমান্ডে নিতে আবেদন করেছে পুলিশ। শুক্রবার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে এ আবেদন করা হয়। আগামী রোববার রিমান্ড শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন পাইকগাছা থানার ওসি জিয়াউর রহমান।

ওসি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইসহাক পকেটমারির কথা স্বীকার করেছেন। ঘটনার দিন তার সঙ্গে আরও চারজন ছিলেন। তবে তাদের নাম বলতে পারলেও বিস্তারিত পরিচয় ও ঠিকানা বলতে পারেননি ইসহাক। বাকি পকেটমারদের বিস্তারিত তথ্য পেতে তাকে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার সকালে কপিলমুনি বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী খালিদ হোসেন। ওই সময় সংসদ সদস্য শেখ মো. আখতারুজ্জামান বাবু, কপিলমুনি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়াদ্দারসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে ছয়জনের পকেট থেকে টাকা ও মোবাইল ফোন হাতিয়ে নেওয়া হয়।

পরে সাংবাদিকদের তোলা একাধিক ছবিতে দেখা যায়, প্রতিমন্ত্রীর সামনে দাঁড়িয়ে থাকা মাস্ক পরিহিত খর্বাকৃতির মধ্যবয়স্ক এক ব্যক্তি পকেটমারি করছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কপিলমুনির সাংবাদিক তপন পাল বৃহস্পতিবার পাইকগাছা থানায় একটি মামলা করেন। ওই দিন বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে খুলনা মহানগরীর রূপসা ঘাট এলাকা থেকে ইসহাককে গ্রেপ্তার করে পাইকগাছা থানা পুলিশ। তার বাড়ি রূপসা উপজেলার নৈহাটী গ্রামে।