নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিসে চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মামলার বাদীসহ আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার রাতে জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার তাদের আদালতে পাঠায় পুলিশ।

গ্রেপ্তার তিনজন হলেন- চুরির মামলার বাদী অফিসের সার্টিফিকেট সহকারী অমিতাভ সরকার, নৈশপ্রহরী রাজীব বিন ও কবীর মিয়া। এর আগে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, আটপাড়া উপজেলা পরিষদ ভবনের নিচতলার সিঁড়ির নিচে টয়লেটের ভেন্টিলেটার ভেঙে চোর ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় ইউএনওর কার্যালয় ও পাশের দুটি কক্ষের তালা ভেঙে আলমারিতে থাকা প্রায় সাড়ে চার লাখ টাকা নিয়ে যায়। কাগজপত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রাখে। অফিসের ভেতরে থাকা সিসি ক্যামেরার তার কেটে হার্ডডিস্কও নিয়ে যায় চোররা।

এ ঘটনায় ইউএনও অফিসের সার্টিফিকেট সহকারী অমিতাভ সরকার গত রোববার বিকেলে অজ্ঞাতপরিচয় লোকজনকে আসামি করে আটপাড়া থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ রোববার রাতে নয়ন মিয়া, জীবন মিয়া ও রবিন মিয়াকে গ্রেপ্তার করে।

শুক্রবার রাতে নেত্রকোনার আরামবাগ এলাকা থেকে রাজীব বিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জেলা শহরের ব্রজেন্দ্র রোডের অমিতাভ সরকার ও তাদের সহযোগী সাতপাই এলাকার কবীর মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আটপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, চুরির ঘটনায় গ্রেপ্তাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সঙ্গে সংশ্নিষ্টতা রয়েছে বলে জানিয়েছেন। ইউএনও মো. শাকিল আহমেদ বলেন, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত অপরাধীরা শাস্তির আওতায় আসুক।