ফরিদপুরে একটি হত্যা মামলায় ৯ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার দুপুর দুইটার দিকে ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় ঘোষণা করেন। 

আদালত একই সঙ্গে প্রত্যেক আসামিকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। জরিমানা অনাদায়ে প্রত্যেক আসামিকে আরও দুই মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। 

রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে হাজির ছিলেন। রায় প্রদানের পর তাদের কড়া পুলিশ প্রহরায় জেলা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বাবর আলী (৭৩), মো. সাদ্দাম হোসেন (৩৩), মাসুদ শেখ (৫৩), মাহমুদ শেখ (৪৩), টেপু শেখ (৫৮), জুয়েল শেখ (৩৩), সাত্তার শেখ (৮৩), আবু তালেব শেখ (৪৩) ও সৈয়দ নেপুর আলী (৩৮)। তারা সকলে আলফাডাঙ্গা উপজেলার বানা ইউনিয়নের আটকবানা গ্রামের বাসিন্দা।

এ হত্যা মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামে একটি মসজিদের ইমাম নিয়োগকে কেন্দ্র করে ২০১৩ সালের ২১ জুন দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে মাফুজার শেখ (৪০) নামে এক ব্যক্তি আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থার মারা যান। এ ঘটনায় মাহফুজার শেখের চাচা মোক্তার শেখ (৭৬) বাদী হয়ে আলফাডাঙ্গা থানায় ১০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। 

আলফাডাঙ্গা থানার এসআই সিরাজুল ইসলাম তদন্ত শেষে গত ২০১৪ সালের ২৯ এপ্রিল এহজাহারভুক্ত ১০ জনকেই অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। তবে মামলা চলাকালীন সময়ে এ মামলার আবু বক্কার শেখ (৫০) মারা যান। ফলে তার নাম আসামির তালিকা থেকে বাদ দেন আদালত।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওই আদালতের সহকারী সরকারি কৌশলী (এপিপি) নওয়াব আলী বলেন, ১৮৬০ সালের দণ্ডবিধির ৩০২/১৪৯ ধারায় আসামিদের দোষী সাব্যস্ত করে এ আদেশ দেন আদালত।