সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ তিন জনের মধ্যে দুই জনের মরদেহ উদ্ধার করেছেন ডুবুরিরা। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করেন।

তারা হলেন, সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার মুরাদপুর গ্রামের হারুনুর রশিদের ছেলে হেলাল মিয়া (৩২) ও সাচনাবাজার ইউনিয়নের নাজাতপুর গ্রামের রমজান আলীর ছেলে তুলা মিয়া (৫০)।

এর আগে বৃস্পতিবার রাতে জামালগঞ্জের মান্নানঘাট বাজারের পাশে সংবাদপুর এলাকায় সুরমা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় এই ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে। এ সময় বালুবাহী ট্রলারে থাকা ছয় শ্রমিকের তিনজন তীরে ওঠতে পারেননি। নিখোঁজ অন্য ব্যক্তি হলেন, সাচনাবাজার ইউনিয়নের কুকরাপশি গ্রামের কামাল মিয়ার ছেলে এনামুল হক।

জামালগঞ্জ থানার ওসি মীর মোহাম্মদ আব্দুল নাসের জানান, এ ঘটনায় বাল্কহেডসহ চার শ্রমিককে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন- বাল্কহেড এর চালক পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার তুপখানা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে নান্না মিয়া (৬০), একই জেলার ভান্ডারিয়া থানার হরিনপাশা গ্রামের মমিন উদ্দিনের ছেলে কবির হোসেন (৩৫) ও তার ছেলে তাওহিদ মিয়া (১৫) ও মঠবাড়িয়া থানার উদয়তারা বুরুঞ্চা গ্রামের নেছার তালুকদারের ছেলে আয়ুব আলী (৪৮)।

ওসি বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সন্ধ্যার পর উদ্ধার অভিযান আজকের মতো স্থগিত করা হয়েছে।