কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে তিনজন গুলিবিদ্ধসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন। শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভৈরব পৌরসভার ভৈরবপুর এলাকায় দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন ভৈরব পৌরসভার ভৈরবপুর উত্তরপাড়া এলাকার ইমতিয়াজ আহমেদ (৩৫), অপু (২৭) ও দুর্জয় (২২)। আহত পাঁচজনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন রাবিম (১৬), রাফসা (৬), মবিন (২০), রাশিদ মিয়া (২৫) ও খোকন মিয়া (১৪)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুই তরুণের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে শনিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দফায় দফায় ভৈরব পৌরসভার ভৈরবপুর এলাকায় সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় ১০টি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়।

একপর্যায়ে পুলিশ ৪২ রাউন্ড শটগানের গুলি ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পুলিশের গুলিতে আহত হন ইমতিয়াজ আহমেদ (৩৫), অপু (২৭) ও দুর্জয় (২২)। গুরুতর আহত ইমতিয়াজ আহমেদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।  

এ ছাড়া গুলিবিদ্ধ অপর দুইজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে পুলিশের ছয় সদস্য আহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ভৈরব সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার রেজওয়ান দীপু জানান, সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে পুলিশের ছয় সদস্য আহত হয়েছেন। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।