নৈশপ্রহরীকে পেটানো বগুড়া সদরের ইউএনওর বিরুদ্ধে একাট্টা হয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় সব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তাঁরা অবিলম্বে ওই কর্মকর্তার বদলির দাবি জানিয়ে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। আজ সোমবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এই লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়।

অভিযোগে বলা হয়, ইউএনও সমর কুমার পাল বগুড়া সদর উপজেলায় যোগ দেওয়ার পর থেকে জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে স্বেচ্ছাচারমূলক আচরণ করছেন। তিনি কাউকে মর্যাদা দেন না। নিজে সময়মতো অফিস না করলেও উপজেলার সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বিনা প্রয়োজনে গভীর রাত পর্যন্ত কার্যালয়ে আটকে রাখেন। তিনি কোনো কারণ ছাড়াই অনেকের সঙ্গে অসদাচরণ করেন। গত ২২ সেপ্টম্বর তিনি আলমগীর হোসেন নামে এক নৈশপ্রহরীকে বাসায় ডেকে নিয়ে বেধড়ক পেটান।
লিখিত অভিযোগে স্বাক্ষর করেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান শফিক, ভাইস চেয়ারম্যন এইচ এম ইকবাল, ডালিয়া নাসরিন রিক্তাসহ ১১টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।
ইউএনও সমর কুমার বলেন, এই উপজেলায় যোগদানের পর থেকে সংশ্নিষ্ট সবার সঙ্গে মিলে ও পরামর্শের ভিত্তিতে কাজ করে যাচ্ছি। এরপরও কেন তাঁরা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করলেন, তা বোধগম্য নয়।