পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কুমিল্লা কার্যালয় থেকে অস্ত্রসহ বিভিন্ন মালামাল চুরির ঘটনা ঘটেছে।

গত রোববার গভীর রাতে নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকায় একটি ভাড়া করা বহুতল ভবনের নিচতলা থেকে এসব মালামাল চুরির ঘটনা ঘটে। তবে সোমবার রাতে বিষয়টি জানাজানি হয়।

এদিকে সোমবার দুপুরের মধ্যেই পিবিআই সদস্যরা অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে। তাদের কাছ থেকে চুরি হওয়া সকল মামলাল উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার রাতে পিবিআই, কুমিল্লার পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

পিবিআই, কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার গভীর রাতে কার্যালয়ের নিচতলার একটি দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে চোর চক্রের সদস্যরা। ভেতরে ঢোকার আগে ভবনের প্রবেশ পথের সিসিটিভি ক্যামেরা উপরের দিকে ঘুরিয়ে রাখা হয়। পরে একটি পিস্তল, ২০ রাউন্ড গুলি, দু’টি ফিঙ্গারপ্রিন্ট মেশিন, ৫টি ল্যাপটপ এবং ১৫টি মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে যায় তারা।

সকালে চুরির বিষয়টি টের পেয়ে চোরদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেন পিবিআই কর্মকর্তারা। পরে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দুপুরের মধ্যেই এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে আটক করেন তারা।

পিবিআইয়ের পুলিশ পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম বলেন, চুরির ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সকল মালামালসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

পিবিআই পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান সমকালকে বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা আগেও জেলার বাইরে বিভিন্ন সরকারি অফিসে চুরি করেছে বলে স্বীকার করেছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।