নাটোরের গুরুদাসপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতিতে সাইফুল ইসলাম জয় (৪৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার চাঁচকৈড় পুরানপাড়া মহল্লায় এই ঘটনা ঘটে। সাইফুল একই মহল্লার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মতিন জানান, স্থানীয়  মাসুদ রানার চায়ের দোকানে ১০০ টাকা বকেয়া ছিলো সাইফুলের। রাতে সেই টাকা চাওয়ায় মাসুদের সঙ্গে সাইফুলের কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে দুইজন হাতাহাতিতে জড়ায়। এ সময় দোকানের টেবিলে রাখা গ্লাস ভেঙে সাইফুলের ডান হাত কেটে রক্তক্ষরণ শুরু হলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা তাকে  উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

তিনি আরও জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ঘটনার পর থেকেই মাসুদ পলাতক রয়েছেন। সাইফুলের স্বজনদের অভিযোগ পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের এক পর্যায়ে দোকানি মাসুদ কাচের গ্লাস দিয়ে সাইফুলকে আঘাত করেন। এতে গ্লাস ভেঙে কাচের আঘাতে হাত কেটে রক্তক্ষরণে সাইফুলের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।