ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে ১০ বছর বয়সের এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে নায়েব আলী মন্ডল (৬৫) নামে অভিযুক্ত একজনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে উত্তেজনা জনতা।

অভিযুক্ত নায়েব আলী মন্ডল উপজেলার শিতলী গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীর স্বজন সূত্রে জানা যায়, রোববার বেলা আড়াইটার দিকে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি ভুক্তভোগী শিশুটির বাড়ির পাশে ধানক্ষেতে কাজ করতে যান। শিশুটি তখন বাড়ির পাশে খেলছিল। সে সময় তাকে ফুসলিয়ে পাশেই একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে তিনি ধর্ষণ করেন। পরে বাড়িতে ফিরে মা‘কে ঘটনাটি জানায় ভুক্তভোগী ওই শিশু।

এদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে অভিযুক্ত ব্যক্তি পালিয়ে যাওয়ার সময় উত্তেজিত জনতা ধাওয়া করে তাকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। ভুক্তভোগী শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালের চিকিৎসক আহমাদুল্লাহ জানান, শিশুটিকে যৌন নির্যাতন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

হরিণাকুণ্ডু থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় থানায় ধর্ষণ, নারী ও নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।