আসন্ন পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনের সংসদ সদস্য মহিব্বুর রহমান মুহিবের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় সরকার পরিষদ নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিদের প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ বিষয়ে বিধিনিষেধ থাকা সত্ত্বেও অনেকটা প্রকাশ্যেই নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন তিনি। সর্বশেষ গতকাল সোমবার সকালে জেলার রাঙ্গাবালীতে দলীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খলিলুর রহমান মোহন মিয়ার নির্বাচনী সভায় তিনি অংশগ্রহণ করেন এবং বক্তব্য দেন। এর আগে জেলার কুয়াকাটায় অনুষ্ঠিত একটি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন এমপি মুহিব।

এদিকে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে এমপি জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণায় অংশগ্রহণ করায় সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মাকসুদুর রহমান। তিনি বলেন, 'যাঁরা সংসদে আইন পাস করছেন, তাঁরাই যদি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে কোনো প্রার্থীর পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন, তাহলে সে নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিবেই। আমরা আশা করছি এসব বিষয়ে নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তারা দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।'

এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য মহিব্বুর রহমান মুহিব বলেন, 'আমি কোনো নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় আসিনি। আমি রাঙ্গাবালী উপজেলার পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে এসেছি'। ছবিতে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করতে দেখা যাচ্ছে জানালে তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে লাইন কেটে দেন।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা খান আবির শাহানুর খান জানান, এ বিষয়ে প্রমাণসহ অভিযোগ পাওয়া গেলে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৭ অক্টোবর পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীসহ মোট তিনজন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা