জাতীয় গ্রিডের পূর্বাঞ্চলীয় সঞ্চালন লাইনে বিভ্রাট দেখা দেওয়ায় ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের অধিকাংশ এলাকা বিদ্যুৎহীন রয়েছে। তবে প্রায় ৪০ মিনিট পর ময়মনসিংহ, জামালপুর, টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ জেলার শহর এলাকায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

পওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) ময়মনসিংহের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাসুদুর রহমান বলেন, কোনো একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন বন্ধ হয়ে সংকট তৈরি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরিস্থিতি উত্তরণে চেষ্টা চলছে। মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন বন্ধ হওয়ার ৪০ মিনিট পর ময়মনসিংহ, জামালপুর, টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জের কিছু অংশে বিদ্যুৎ চালু করা যায়। বাকিগুলো পর্যায়ক্রমে চালুর কাজ চলছে।

ময়মনসিংহ থেকে ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, কিশোরগঞ্জ ও টাঙ্গাইল জেলার বিদ্যুৎ নিয়ন্ত্রণ হয়। এ অঞ্চলে ১১ লাখের বেশি মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধা ভোগ করেন। মঙ্গলবার দুপুরে হঠাৎ পুরো অঞ্চলে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

কর্মকর্তারা বলছেন, বিদ্যুতের উৎপাদন ও বিতরণের সমন্বয় না হওয়া এবং কোনো উৎপাদন কেন্দ্র বন্ধ হয়ে গেলে এ ধরনের সংকটের সৃষ্টি হয়। বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো উৎপাদনে এসে পর্যায়ক্রমে পূর্বের অবস্থায় ফিরতে বেশ সময় লাগে। কিছু এলাকায় আংশিক বিদ্যুৎ চালু করা গেলেও বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ছিল অধিকাংশ এলাকা। বিদ্যুৎ না থাকায় ভোগান্তির মধ্যে পড়েন গ্রাহকরা। 

পিডিবির ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম সমকালকে বলেন, ব্ল্যাক আউটের শিকার হয়েছে পুরো এলাকা। কী কারণে এমন হয়েছে তা জানা যায়নি। কোথা থেকে এমন হয়েছে তা জানার চেষ্টা চলছে। পরিস্থিতি উত্তরণ কত সময় লাগতে পারে তা বলা যাচ্ছে না।