বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে সিট রাখাকে কেন্দ্র করে নিজ দলের কর্মীকে থাপ্পড় মেরেছেন ছাত্রলীগ নেত্রী। কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শেখ হাসিনা হল ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী ফাইজা মাহজাবিনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। তবে ফাইজার অভিযোগ তাঁকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করেছেন জাহাঙ্গীর আলম। গত বুধবার রাতে কুমিল্লা শহর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গামী সাড়ে ৮টার বাসে এ ঘটনা ঘটে।

জাহাঙ্গীর আলম বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ছাত্রলীগ কর্মী। তাঁর ভাষ্য, বাস ছাড়ার আগে বন্ধুর জন্য খাতা দিয়ে সিট রাখেন জাহাঙ্গীর। তবে ফাইজা এসে তাঁর খাতা সিট থেকে ছুড়ে ফেলে দিয়ে অন্যজনকে সেখানে বসান। খাতা সরানোর কারণ জানতে চাইলে ফাইজা চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন। এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীরকে থাপ্পড় মারেন। আবারও থাপ্পড় মারতে আসলে জাহাঙ্গীর সরে যান।
তবে থাপ্পড় মারার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ফাইজা। তিনি বলেন, 'আমি অসুস্থ থাকায় সিটে বসেছি। সে (জাহাঙ্গীর) আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছিল। আমি তার গায়ে হাত দেইনি। সে এবং তার বন্ধুরা মিলে আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করার কারণে বিরক্তবোধ করেছি আমি।'
কুবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ বলেন, 'আমি ঢাকায় আছি। ক্যাম্পাসে এসে যে দোষী তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেব।'
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর কাজী ওমর সিদ্দিকী জানান, বিষয়টি শুনেছেন তিনি। তবে কেউ তাঁকে লিখিত অভিযোগ দেয়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।