বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে বাস ধর্মঘটের পর এবার মহাসড়কে চলাচলকারী সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও থ্রি–হুইলার যানের ধর্মঘট ডেকেছে জেলা মিশুক–সিএনজি মালিক সমিতি।

সব ধরনের সড়কে অবাধ চলাচল ও হয়রানিমুক্ত নিবন্ধনের দাবিতে শুক্রবার সকাল থেকে রাজশাহীতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট ডাকা হয়।

রাজশাহী মিশুক-সিএনজি মালিক সমিতির সহ-সভাপতি আহসান হাবিব বলেন, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, থ্রি-হুইলার, হিউম্যান হলার ও লেগুনা জেলার অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচল করে। কিন্তু সকল সড়কে আমরা অবাধে চলাচল করতে পারি না। এছাড়াও নতুন অটোরিকশা কেনা হলে তার রেজিস্ট্রেশন করতে হয়রানির শিকার হতে হয়। এ কারণে আমরা ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হয়েছি।

তিনি বলেন, দুই দফা দাবির বিষয়ে বৃহস্পতিবার রাতে মালিক সমিতির যৌথ বৈঠক হয়। সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার সকাল থেকে অনিদির্ষ্টকালের জন্য আমাদের ধর্মঘট শুরু হয়েছে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি মানার আশ্বাস পেলে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হবে। 

এর আগে মহাসড়কে নছিমন-করিমন-ভটভটিসহ অবৈধ যান চলাচল বন্ধ করতে ১০ দফা দাবিতে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে রাজশাহী বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে। আগামীকাল শনিবার রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশের আগে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হওয়ায় বিএনপির নেতাকর্মীরা অটোরিকশাসহ তিন চাকার যানে রাজশাহীতে আসছিলেন। সাধারণ যাত্রীদেরও বাসের বিকল্প হিসেবে তিন চাকার যানই ছিল একমাত্র ভরসা। এবার তাও বন্ধ করে দেওয়া হলো।