কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে পর্যটক বহনে নিয়োজিত থাকা খালি একটি জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকালে টেকনাফের দমদমিয়াস্থল ঘাটে নৌঙরে থাকা জাহাজ ‘কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইনে’ বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনে লাগে বলে জানা গেছে। পরে খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস।

প্রত্যক্ষদর্শী জানান, টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় জাহাজ কেয়ারি সিন্দবাদ ও কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন দমদমিয়াস্থল ঘাটে দীর্ঘদিন ধরে নৌঙরে রয়েছে। পর্যটন মৌসুম আসায় এসব জাহাজগুলো মেরামত শুরু করে জাহাজ কর্তৃপক্ষ। রোববার হঠাৎ পর্যটক বহনে ব্যবহৃত জাহাজটিতে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। মূহূর্তেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় ৭টি এসি এবং জাহাজের উপরের অংশসহ বেশকিছু মালপত্র পুড়ে যায়।

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টেকনাফ স্টেশনের কর্মকর্তা মুকুল কুমার নাথ সমকালকে জানান, ‘জাহাজে ধরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনে সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ঘটনায় জাহাজের এসিসহ উপরের একটি অংশ পুড়ে গেছে।’

কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন জাহাজের টেকনাফের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, জাহাজে আগুন লেগে আমাদের ২০-৩০ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।