ছেলে রাসেলের বিয়ে উপলক্ষে মজিবুর রহমানের বাড়িতে চলছিল নানা আয়োজন। বৌভাতের অনুষ্ঠান সামনে রেখে শনিবার গভীর রাত থেকে বাবুর্চিরা রান্নার কাজ শুরু করেন। তবে বিয়েবাড়ির সকল আয়োজন নিমিষেই রূপ নিল বিষাদে।

রোববার ভোরে একদল ডাকাত হানা দিয়ে বোমা ফাটিয়ে সবকিছু লুটে নিয়েছে। এসময় ধারালো অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ ১০ লক্ষাধিক টাকার সামগ্রী নিয়ে গেছে তারা। বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ভূতেরদিয়া গ্রামে ভোর পৌনে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

যাওয়ার সময় গ্রামবাসী ডাকাতদের ধাওয়া দিলে তারা তিনটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে মোসলেম উদ্দিন (৪৫) নামে এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ডাকাতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় কেদারপুর ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম বেপারী।

ভুক্তভোগী মজিবুর রহমান জানান, গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করে বাড়ির বেশিরভাগ সদস্য ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। বাবুর্চিরা রান্নার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ভোরে ১৫-২০ জন ধারালো অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে হানা দেয়। তারা প্রথমে বাবুর্চিদের বেঁধে ফেলে। দরজা খোলা থাকায় অনায়াসে ঢুকে পড়ে ঘরের মধ্যে। অস্ত্র দিয়ে জিম্মি করে নগদ সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা, ৮-১০ ভরি স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান সামগ্রী লুট করেছে। ডাকাতরা যাওয়ার সময় বাড়ির লোকজন চিৎকার দিলে গ্রামের লোকজন এগিয়ে আসে।

বাবুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, পুলিশ সুপার মো. ওয়াহেদুজ্জামান, সিআইডি পুলিশ সুপার মো. কামরুল ইসলাম, পিবিআই পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমানসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জড়িতদের শনাক্ত ও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।