বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজে ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সদস্যদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কলেজ অধ্যক্ষের বাসভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় সাতজন আহত হয়। এ সময় ১৫টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় হামলাকারীরা।

আহত সরকারি শাহ সুলতান কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক, শহর ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান সাব্বির, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসম্পাদক নূরআলম, আজিজুল হক কলেজ ছাত্রলীগ নেতা রিমন রহমানসহ সাতজনকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নতুন কমিটির নেতারা জানান, শনিবার রাতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের নেতৃত্বে ২৫ থেকে ৩০টি মোটরসাইকেলে ৫০ জন আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান। সভাপতি সজীব সাহা ও সাধারণ সম্পাদক আল-মাহিদুল জয় অধ্যক্ষের বাসভবনে প্রবেশ করার কিছুক্ষণ পরেই প্রত্যাশিত পদবঞ্চিত জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সহসভাপতি তৌহিদুর রহমান ও যুগ্ম সম্পাদক মাহাফুজারের নেতৃত্বে কয়েকজন তাঁদের ওপর হামলা করে।

নতুন কমিটির সভাপতি সজীব সাহা জানান, অধ্যক্ষের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য আমি, সম্পাদকসহ প্রায় ৫০ জন নেতাকর্মী গিয়েছিলাম। এ সময় তৌহিদ ও মাহাফুজারের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা করলে ১০ জন আহত হয়।

জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজার রহমান জানান, শনিবার রাতে আমাদের কাছে খবর আসে, ছাত্রদল ও শিবিরের নেতাকর্মীরা কলেজ ক্যাম্পাসে নাশকতার জন্য গেছে। এ জন্য আমরা কলেজে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে প্রবেশ করতেই আমাদের ওপর হামলা চালানো হয়। তবে তারা কারা ছিল, আমরা জানি না। আমরা শুধু তাদের প্রতিহত করেছি।

বগুড়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শরাফত ইসলাম জানান, অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।