ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

হত্যার পর লাশ পোড়ানোর মামলায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

হত্যার পর লাশ পোড়ানোর মামলায় ৭ জনের যাবজ্জীবন

প্রতীকী ছবি

জামালপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৯:০২ | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৯:০৪

জামালপুরে কলেজছাত্র লিটন হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড; অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। প্রমাণ লোপাটের দায়ে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপরে এই সাজা দেন জামালপুরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এহসানুল হক। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত সাত আসামির মধ্যে ছয়জন আদালতে উপস্থিত ছিল। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো– মিজান, সোহেল, সুমন, লাভলু, হেলাল, মিজান ও মজিবুর রহমান (পলাতক)। 

জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি জামালপুর সদর উপজেলার রশিদপুর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর এলাকায় পতিত জমিতে লিটনকে গলা কেটে হত্যা করে আসামিরা। এর পর লাশটি পুড়িয়ে ফেলে। লিটন ছিল তুলসীপুর ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী। সে একটি স্থানীয় সমিতির সদস্য ছিল। সেখানে টাকা লেনদেন নিয়েই এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। 

ঘটনার আট বছর পর মঙ্গলবার এ মামলার রায় দেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিপি নির্মলকান্তি ভদ্র ও অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আমান উল্লাহ আকাশ ও জামিল হোসেন তাপস। বাদী ছিলেন নিহতের বাবা আব্দুস সামাদ।

আরও পড়ুন

×