ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

সংগীতশিল্পী বন্যাকে সংবর্ধনা জানাল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

সংগীতশিল্পী বন্যাকে সংবর্ধনা জানাল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয় সমকাল

 গাজীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০১ মার্চ ২০২৪ | ০০:২৬

ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘পদ্মশ্রী’ পদকের জন্য মনোনীত হওয়ায় বরেণ্য রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার গাজীপুরের প্রধান ক্যাম্পাসের সিনেট হলে ছিল এ আয়োজন। 
রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা অনুষ্ঠানে বলেন, ‘যে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে, সেটির জন্য আমি একটা উপলক্ষ। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যে সম্পর্ক, সেটি অনেক পুরোনো। সেই বন্ধুত্ব ও সম্পর্কের নিদর্শনস্বরূপ আমাকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে। আমি মনে করি, এই সম্মাননা দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশকে, বাংলাদেশের সাধারণ মানুষকে।’ তিনি মনে করেন, রবীন্দ্রনাথের গানে যে মানবিকতা, ঔদার্য, সৌহার্দ, প্রীতি, বন্ধুত্ব– এই সব কিছুর নিদর্শন হিসেবে তাঁকে এই সম্মাননার জন্য মনোনীত করেছে ভারত সরকার। 
প্রজাতন্ত্র দিবস সামনে রেখে ভারত গত ২৬ জানুয়ারি ‘পদ্মবিভূষণ’ পদকের জন্য পাঁচজন, ‘পদ্মভূষণ’ পদকের জন্য ১৭ জন ও ‘পদ্মশ্রী’ পদকের জন্য ১১০ জনের নাম ঘোষণা করে। শিল্প বিভাগে রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে এবারের ‘পদ্মশ্রী’ দেওয়া হচ্ছে। রীতি অনুযায়ী প্রতি বছরের মার্চ বা এপ্রিলে ভারতের রাষ্ট্রপতি নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে পুরস্কার তুলে দেন। 
অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সৃজনশীলতার মধ্য দিয়ে রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার টিকে থাকার সংগ্রাম সবসময় সুশীতল, স্নিগ্ধ, কোমল, শান্তিময় ও প্রতিবাদমুখর হয়েছে বলে উল্লেখ করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান। তিনি বলেন, ‘বন্যা যে সম্মাননা পেয়েছেন, এর মধ্যে বঙ্গবন্ধু, রবীন্দ্রনাথ, নজরুল; মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সুস্থ সংস্কৃতি খুঁজে পাই। মানবিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে এটি অনুপ্রেরণা হয়ে রইবে।’

আরও পড়ুন

×