ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

প্রচারণা শেষ আজ ছুটছেন প্রার্থীরা

ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচন

প্রচারণা শেষ আজ  ছুটছেন প্রার্থীরা

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ

প্রকাশ: ০৭ মার্চ ২০২৪ | ০৫:৪১

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শেষ হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে। শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। পুরো নগরী মুখর মিছিল-স্লোগানে। লিফলেট হাতে প্রার্থী-সমর্থকরা ছুটছেন ভোটারদের কাছে, দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি।

গতকাল বুধবার প্রার্থীরা বিরামহীন দৌড়ঝাঁপ করেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে সভা ও মিছিল হয়। বিএনপিবিহীন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির একজন প্রার্থী থাকলেও এই সিটিতে মূলত আওয়ামী লীগ বনাম আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। তবে বিভিন্ন মতাদর্শের প্রার্থী থাকায় ভোটার উপস্থিতি ভালো হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 
সদ্য সাবেক মেয়র ইকরামুল হক টিটু প্রচারণায় এগিয়ে বলে দাবি করেছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি উত্তম চক্রবর্তী রকেট। তিনি বলেন, ‘চারদিকে টিটুর টেবিল ঘড়ির জয়ধ্বনি শুরু হয়েছে। তিনি আবার মেয়র হচ্ছেন।’

নগরবাসী শান্তিপূর্ণ ভোট প্রত্যাশা করলেও গত রোববার রাতে নগরীর বাঁশবাড়ী কলোনি এলাকায় হামলার শিকার হন মেয়র প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম। সাবেক মেয়র ইকরামুল হকের সমর্থকরা হামলা করেন বলে অভিযোগ করলেও পুলিশ অভিযোগের সত্যতা পায়নি। এ নিয়ে উত্তেজনা রয়েছে উভয় শিবিরে। 

নগরীর আমলাপাড়ার বাসিন্দা নাসিমা বেগম বলেন, ‘গত সিটি নির্বাচনে ভোট দিতে পারিনি। এবার যোগ্য প্রার্থীকেই নির্বাচিত করব।’ চরপাড়া এলাকার সাজিদ উল্লাহ তন্ময় বলেন, ‘প্রথমবার ইভিএমে ভোট দেব। প্রার্থী ও সমর্থকরা এসে ভোট চাইছে। এ উৎসব ভালো লাগছে।’

মেয়র প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু (টেবিল ঘড়ি) গতকাল নগরীর বিদ্যাময়ী স্কুল এলাকা, কলেজ রোড, নওমহল, নাহা রোড, সানকিপাড়ায় গণসংযোগ করেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘উন্নয়ন-অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে ও অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে সবাই ভোটকেন্দ্রে যাবেন, টেবিল ঘড়ি প্রতীকে ভোট দেবেন।’  

অপরদিকে হাতি প্রতীকের প্রার্থী সাদেকুল হক খান মিল্কী টজু চরপাড়া ও আশপাশের এলাকায় গণসংযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘চারদিকে পরিবর্তনের জোয়ার উঠেছে। বর্তমান এমপির লোকজন ও নৌকার কর্মীরা আমার পক্ষে কাজ করায় ভোটের মাধ্যমে এবার জনগণ পরিবর্তন ঘটাবে আশা করছি।’ ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী এহতেশামুল আলম নগরীর ব্রিজ মোড়, র‍্যালির মোড়সহ আশপাশের এলাকায় গণসংযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতিমুক্ত সিটি গড়তে ও মানুষকে দুর্ভোগ থেকে মুক্তি দিতে চাই। মানুষ পরিবর্তন চাচ্ছে। এবার মানুষ ভোটের মাধ্যমে বিপ্লব ঘটাবে।’ অন্য প্রার্থীরাও নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও ভোট প্রার্থনা করছেন। 

সিটি নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।’

ময়মনসিংহ সিটির দ্বিতীয় এই নির্বাচনে মো. ইকরামুল হক টিটু, এহতেশামুল আলম ও অ্যাডভোকেট সাদেকুল হক খান মিল্কী টজু ছাড়াও মেয়র পদে লড়ছেন কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সদস্য কৃষিবিদ ড. রেজাউল হক (হরিণ) এবং জেলা জাতীয় পার্টি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম স্বপন মণ্ডল (লাঙ্গল)। এ ছাড়া ৩৩টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৯ এবং ১১টি সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে প্রার্থী আছেন ৬৯ জন। একটি ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় ৩২টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন হবে। ভোট গ্রহণ হবে আগামী ৯ মার্চ।

আরও পড়ুন

×