ঢাকা শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

বৃহত্তর ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের দেড় যুগ পূর্তি

বৃহত্তর ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের দেড় যুগ পূর্তি

অনুষ্ঠানে অতিথিরা। ছবি: সমকাল

ফরিদপুর অফিস

প্রকাশ: ১১ মার্চ ২০২৪ | ০৩:০৪

বৃহত্তর ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের দেড় যুগ পূতি উপলক্ষে প্রকাশনা, প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকাল ৪টায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিক লিয়াকত হোসেন মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ফরিদপুরের কবি সাহিত্যিকদের হার্দ্য অনুভব আর নিবিড় পর্যবেক্ষণে লেখা বঙ্গবন্ধু বিষয়ক বই এবং ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের একাডেমিকসহ বৃহত্তর ফরিদপুরের সব লেখকদের প্রকাশনাগুলো প্রেসক্লাব চত্বরে তিনটি স্টলে প্রদর্শনী করা হয়।

ফরিদপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বৃহত্তর ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের সভাপতি বদিউজ্জামান চৌধুরী ভাদুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিশিষ্ট সমাজসেবী অধ্যাপক রাবেয়া খানম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোর্শেদ আলম।

ফরিদপুর সাহিত্য পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃধা রেজাউল করিমের সঞ্চালনা অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য দেন- প্রবীণ শিক্ষাবিদ অধ্যাপক এম এ সামাদ, বৃহত্তর ফরিদপুর ইতিহাস ঐতিহ্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মফিজ ইমাম মিলন, ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল ইসলাম পিকুল, রাজবাড়ী থেকে আগত সাংবাদিক ও লেখক বাবু মল্লিক এবং লেখক মঈন উদ্দিন আহমেদ।

বক্তারা বলেন, আমাদের নিজেদের ঐতিহ্যকে জানতে হলে, ধারণ করতে হলে সাহিত্য অঙ্গনে পদচারণ করতে হবে। বিভিন্ন লেখকের লেখনী পড়তে হবে। আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাঝে তাদের বিভিন্ন লেখকের লেখনী বই তাদের হাতে তুলে দিতে হবে। তাহলে মোবাইল ও মাদকের হাত থেকে আমাদের নতুন প্রজন্ম মুক্তি পাবে।


 

আরও পড়ুন

×