পাবনার ঈশ্বরদী শহরের পশ্চিমটেংরি কড়ইতলা এলাকায় গুলি ও ছুরিকাঘাতে মামুন হোসেন (২৫) নামের এক রিকশাচালক নিহত হয়েছেন।

বুধবার রাতের এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ রকি হোসেন ও ছুরিকাহত সুমনকে মুমূর্ষু অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈশ্বরদী ইপিজেড থেকে ভটভটি ও লেগুনা থামিয়ে তাদের বেপরোয়াগতিতে চলাচলে নিষেধ করে স্থানীয় দোকানিরা।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী দোকানিরা ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জানান, এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামাল উদ্দিনের ভাই যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন তার দলবল নিয়ে ওই দোকানিদের ওপর চড়াও হয়। তাদের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায়ে আনোয়ার হোসেন তার কোমরে থাকা পিস্তল বের করে মামুন হোসেন ও রকি হোসেনকে গুলি করে। সে সময় তার সঙ্গীরা সুমনকে ছুরিকাঘাতে আহত করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাঁদের উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মামুন হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ঈশ্বরদী থানার ওসি অরবিন্দ সরকার জানান, ঘটনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।