উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আবারও কমেছে। দ্বিতীয় দিনের মতো বয়ে চলছে মাঝারি পর্যায়ের শৈত্যপ্রবাহ। মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় সর্বনিম্ন ৬ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। এই তাপমাত্রা দেশের মধ্যে এবং চলতি শীত মৌসুমের মধ্যেও সর্বনিম্ন। সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পঞ্চগড়ে সোমবার থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে চলেছে। এছাড়া সপ্তাহজুড়ে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের প্রভাবে ঘনকুয়াশা আর হিমশীতল বাতাসের কারণে হাড় কাঁপানো শীত অনুভূত হচ্ছে। তবে সোমবার থেকে সকালের পর সূর্যের দেখা মিলছে। দিনভর মিষ্টি রোদে কিছুটা হলেও স্বস্তি পেয়েছেন ছিন্নমূল, খেটে খাওয়া, দিনমজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষ। কিন্ত বিকেলের পর থেকে আবারও শুরু হয় শীতের তীব্রতা।

পঞ্চগড়ের ব্যারিস্টার বাজার এলাকার মুদি দোকাদার রফিকুল ইসলাম বলেন, ঘনকুয়াশা আর ঠান্ডার কারণে কয়েক দিন ধরে সকাল সকাল দোকান খুলতে পারিনি। গতকাল থেকে সকালে রোদ থাকায় কিছুটা হলেও স্বস্তি মিলেছি। দুইদিন ধরে সকাল সকাল দোকান খুলছি।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় সর্বনিম্ন ৬ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এই তাপমাত্রা দেশের মধ্যে এবং চলতি শীত মৌসুমের মধ্যেও সর্বনিম্ন। সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।