'যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন করা' এএসপি রুবেল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১১ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে জারি হয়। তবে তা গত সোমবার রাজশাহীতে এসে পৌঁছায়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, 'সহকারী পুলিশ সুপার, রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়, রাজশাহী ও ইতিপূর্বে সহকারী পুলিশ সুপার, ৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, মহালছড়ি, খাগড়াছড়িকে বিএসআর পার্ট-১ এর বিধি ৭৩ এর নোট ২ অনুযায়ী চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা সমীচীন মর্মে প্রতীয়মান হওয়ায় তাকে চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। তিনি বাংলাদেশ সার্ভিস রুল (বি,এস,আর) পার্ট-১, বিধি-৭১ মোতাবেক খোরাকী ভাতা পাবেন। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে। গত ১৯ জানুয়ারি এ আদেশ সম্বলিত চিঠি পেয়ে ডায়েরিভুক্ত করেছে আইজিপি অফিস।'

গত ১০ সেপ্টেম্বর দৈনিক সমকালের শেষের পাতায় ‘যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে বেধড়ক পেটালেন এএসপি রুবেল’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। ওই সংবাদ প্রকাশের পর পুলিশের উচ্চ মহলে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার হয়। এরপর গত ১৩ সেপ্টেম্বর পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে তাকে শাস্তিমূলক বদলি সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এতে রুবেল হককে শাস্তিমূলক খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে এপিবিএনে স্ট্যান্ড রিলিজ করে ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হলেও রুবেল এপিবিএনে যোগ দেন ১ অক্টোবর। তবে মাত্র দুই মাস পর গত ৬ ডিসেম্বর রুবেল রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি অফিসে বদলি হয়ে আসেন। সেখানে রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজির স্টাফ অফিসার পদে তিনি কর্মরত ছিলেন।