ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

জমি দখল করে সরকারি টাকায় ব্যক্তিগত রাস্তা

জমি দখল করে সরকারি টাকায় ব্যক্তিগত রাস্তা

নাঙ্গলকোট উপজেলায় সরকারি জমি দখল করে ইউপি সদস্যের রাস্তা নির্মাণ সমকাল

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৫ মে ২০২৪ | ০০:২৬

নাঙ্গলকোটের আদ্রা উত্তর ইউনিয়নের মেরকট গ্রামে কয়েকজনের জমি দখল করে অতিদরিদ্রদের কর্মসৃজন প্রকল্পের টাকায় ব্যক্তিগত রাস্তা নির্মাণকাজ চলছে। ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে নিজ বাড়িতে প্রবেশের রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার এ বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগীরা।
ভুক্তভোগী সেকান্তর আলী, এয়াছিন, এনামুল হক ও এনায়েত উল্লাহ বলেন, মেরকট মৌজার ২০১৩, ২০১৫ ও ২০১৬ নম্বর দাগের পৈতৃক সম্পত্তি বহু বছর ধরে চাষাবাদ করে আসছেন তারা। গত সপ্তাহে তাদের মায়ের মৃত্যু হওয়ায় সবাই শোকাহত। এই সুযোগে প্রতিবেশী ও আদ্রা উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান গত রোববার রাতে জমি ও পুকুরপাড়ের গাছপালা কেটে ফেলেন। এরপর এক্সক্যাভেটর দিয়ে মাটি কেটে সরকারি টাকায় ব্যক্তিগত রাস্তা নির্মাণ করেন।

পল্লিচিকিৎসক হেলাল বলেন, ‘মেম্বার আমাকে বলেছেন, আমাদের জমি দিয়ে রিকশা চলাচল করতে পারে এমন একটি রাস্তা তৈরি করবেন। কিন্তু আমার কৃষিজমিগুলোর ব্যাপক ক্ষতি করে বিশাল আকারের রাস্তা নির্মাণ করে ফেলেছেন তিনি।’
অভিযোগের বিষয়ে ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান বলেন, ‘আমি শুধু আমার বাড়ির জন্য রাস্তা নির্মাণ করিনি, রাস্তা করেছি স্থানীয় সবার জন্য। তা ছাড়া রাস্তাটি যেখানে করেছি সেখানে সরকারি খাসজমি আছে।’ গাছ কেটে ফেলার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি গাছ কাটিনি। যাদের গাছ তারা নিজেরাই কেটেছেন।’ অতিদরিদ্রদের কর্মসৃজন প্রকল্পের টাকায় এক্সক্যাভেটর দিয়ে মাটি কাটার বৈধতা সম্পর্কে জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি।

বিষয়টি জানতে আদ্রা উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামকে একাধিকবার ফোন করেও তাঁর সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে নাঙ্গলকোট থানার  ওসি দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলমান।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুরাইয়া আক্তার লাকীর ভাষ্য, বিষয়টি জানা ছিল না। খোঁজখবর করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

×