ঢাকা রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

‘প্রেমে ব্যর্থ’ হয়ে কোটালীপাড়ায় দুই বন্ধুর আত্মহত্যা

‘প্রেমে ব্যর্থ’ হয়ে কোটালীপাড়ায় দুই বন্ধুর আত্মহত্যা

পল্লব বাড়ৈ (২২) এবং অশ্রু বিশ্বাস (২৪)

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৫ মে ২০২৪ | ০৭:২৪ | আপডেট: ১৫ মে ২০২৪ | ০৯:০৩

‘প্রেমে ব্যর্থ’ হয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় দুই বন্ধু আত্মহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে গাছের সাথে ফাঁস দেওয়া অবস্থায় পল্লব বাড়ৈ (২২) নামে কলেজপড়ুয়া এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে কোটালীপাড়া থানা পুলিশ। অন্যদিকে গত সোমবার সকালে ঘরের আড়ায় রশি দিয়ে গলায় ফাঁস  দিয়ে আত্মহত্যা করেন অশ্রু বিশ্বাস (২৪) নামের অপর এক কলেজশিক্ষার্থী। তারা দুজনেই বন্ধু ছিল।

পল্লব বাড়ৈ সিকির বাজার গ্রামের গনেশ বাড়ৈ এর ছেলে এবং অশ্রু বিশ্বাস  ছিকটিবাড়ী গ্রামের আশুতোষ বিশ্বাসের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পল্লব বাড়ৈ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি বরিশালের একটি মেয়ের সাথে দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনে প্রেম করে আসছিলেন। হঠাৎ করে মেয়েটি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিলে গত কয়েকদিন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন তিনি। সোমবার রাতে ঘরে কোথাও তাকে দেখতে না পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের নিয়ে খুঁজতে বের হন পল্লবের মা-বাবা ও পরিবার পরিজন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে পার্শ্ববর্তী একটি গাছে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তাকে দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে কোটালীপাড়া থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। মৃতের শার্টের পকেটে একটি চিরকুট পাওয়া যায়। সেখানে লেখা ছিল ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়’। 

এর আগে গত সোমবার পল্লব বাড়ৈর বন্ধু অশ্রু বিশ্বাস গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। ওই লাশের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শেষে বাড়িতে আসার পর থেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন পল্লব বাড়ৈ। 

কোটালীপাড়া থানার এসআই আতাউর রহমান সাংবাদিকদের জানান, এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ আড়াই শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে জানা যায়, অশ্রু বিশ্বাস ঢাকায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। প্রতিবেশী এক মেয়ের সাথে তার প্রেমের সর্ম্পক ছিল। মেয়েটির অন্যত্র বিয়ে হয়ে যাওয়ার পর থেকে তিনি ‘নেশাগ্রস্ত’ হয়ে পড়েন। কিছুদিন ধরে বিয়ে করার জন্য পরিবারকে চাপ দিয়ে আসছিলেন অশ্রু। এ নিয়ে পরিবারের সদস্যদের সাথে প্রায়ই ঝগড়াবিবাদ করত। গত সোমবার সকালে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন এই যুবক।

কোটালীপাড়া থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে কোটালীপাড়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা ও গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হওয়ার পর লাশ দাফন করা হয়েছে। 

কোটালীপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) ফয়েজ আহম্মেদ বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, পল্লব বাড়ৈ প্রেমে ব্যর্থ হয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আর গত সোমবার অশ্রু নিজেদের ঘরের আড়ার সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ তদন্ত সাপেক্ষে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

আরও পড়ুন

×