ঢাকা রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

২ শ্রমিককে পেটানোর অভিযোগে নাটোরে বাস চলাচল বন্ধ

২ শ্রমিককে পেটানোর অভিযোগে নাটোরে বাস চলাচল বন্ধ

নাটোরে বাস-মিনিবাস চলাচল বন্ধ রয়েছে

 নাটোর প্রতিনিধি

প্রকাশ: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ০১:১৭ | আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ০১:১৭

নাটোরে দুইজন শ্রমিককে মারধর করার প্রতিবাদে মালিক সমিতির নিয়ন্ত্রনাধীন সব রুটে বাস-মিনিবাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন মালিক-শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার  সকাল থেকে এই কর্মসুচি শুরু হয়। তবে নাটোরের ওপর দিয়ে অন্য জেলার বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

নাটোর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম  জানান, বুধবার রাতে সিংড়ার সেরকোল এলাকায় স্থানীয় মালিক-শ্রমিকরা আরপি রোকেয়া পরিবহন নামে নাটোর মালিক সমিতির একটি বাসের চালক জাহাঙ্গীর  ও সুপার ভাইজার শরিফুলকে মারপিট করে। তাদের দুইজনকে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এঘটনার প্রতিবাদ ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষনসহ বিচার দাবিতে কর্মবিরতি হিসেবে এই প্রতিকী ধর্মঘট করছে শ্রমিকরা।

 দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম আরও জানান, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে শুক্র অথবা শনিবার থেকে আন্তজেলা রুটে বাস ধর্মঘট ডাকতে বাধ্য হবেন তারা।

বাসমালিক-শ্রমিকদের এই কর্মসূচির সাথে নাটোরের বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি একাত্মতা ঘোষণা করেছে।

এদিকে, এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন দাবি করেছেন সিংড়া জেলা মোটর মালিক সমিতির সাধারনণসম্পাদক হাসান আলী। তার দাবি, নাটোরের মালিক -শ্রমিকরা নিজেরাই গন্ডগোল করে সিংড়ার ওপর দায় চাপাচ্ছে। তিনি জানান, গত দু’দিনে এ ধরনের মারপিটের কোন ঘটনা সিংড়া উপজেলায় ঘটেনি। হঠাৎ করেই নাটোর সমিতির গাড়ি সিংড়া এলাকায় পাঠিয়ে জোর করে যাত্রী পরিবহন করতে চায়। স্থানীয় মালিক শ্রমিকরা গাড়ি চলাচলের সময় করে দিলে তারা না মেনে অযথা বিরোধ সৃষ্টি করে।

তিনি জানান, তারা জনগনকে দুর্ভোগে ফেলতে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই এ ধরনের হঠকারি কর্মসূচি দিয়েছে। নাটোর সমিতির সাথে তাদের কোন ধরনের বিরোধ নেই। কাউকে মারপিটও করা হয়নি। মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে প্রচার করে বিশৃংখলা সৃষ্টির পায়তারা করছে তারা বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

নাটোর বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি লক্ষন পোদ্দার বলেন,নাটোরের দুই শ্রমিককে রাতে মারপিট করায় শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সিংড়ার কথিত মোটর মালিক সমিতির নেতাদের নির্দেশ ও উপস্থিতিতে আরপি রোকেয়া পরিবহন বাসের চালক ও সুপারভাইজারকে বেধড়ক মারপিট করা হয়। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা না নেওয়া হলে বাস ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হতে পারে।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, নাটোর ও সিংড়া সমিতির মধ্যে আগে থেকেই বিরোধ ছিল। কয়েকদিন ধরে নতুন করে সৃষ্ট বিরোধ নিরসনের চেষ্টা চলছে। তবে কাউকে মারপিট করার কোনো অভিযোগ করেননি কেউ।





আরও পড়ুন

×