অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যাবহুল রাজ্য ভিক্টোরিয়ায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সেনা মোতায়েন করা হচ্ছে। মঙ্গলবার এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে রাজ্যটির কর্তৃপক্ষ।

করোনার ভয়াবহতায় আগের দিন ভিক্টোরিয়াকে দুর্যোগপূর্ণ ঘোষণার পাশাপাশি রাজ্যজুড়ে লকডাউন আরোপ করা হয়। সেই লকডাউন কার্যকরে সেনা মোতায়েনের সঙ্গে যারা কোয়ারেন্টাইন মানবে না তাদের জরিমানাও করা হবে। খবর রয়টার্সের

অস্ট্রেলিয়ায় শুরু থেকে সীমান্ত বন্ধ, কঠোর লকডাউন আরোপ, নিবিড় পরীক্ষার কারণে অন্যান্য উন্নত দেশের চেয়ে করোনা মোকাবেলায় অনেক বেশি সফল।

দেশটিতে করেনায় এ পর্যন্ত ১৯ হাজার মানুষ আক্রান্ত ও ২৩২ জন মারা গেছেন। তবে সম্প্রতি দেশটি লকডাউন শিথিল করার পর থেকেই বিশেষ করে অন্যতম বড় শহর মেলবোর্নসহ ভিক্টোরিয়া রাজ্যে কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে। সোমবার একদিনেই ভিক্টোরিয়া রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছে ৪৩৯ জন আর প্রাণহানি ঘটেছে ১১ জনের। 

এমন পরিস্থিতিতে রাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ড্যানিয়েল অ্যান্ড্রুজ জানান, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ভিক্টোরিয়াকে ‘দুর্যোগের রাজ্য’ ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্যের রাজধানী মেলবোর্নে রাত্রিকালিন কারফিউ জারি করা হয়েছে। বাসিন্দাদের নতুন বিধি নিষেধ মেনে চলাচল করতে বলা হয়েছে। 

তিনি বলেন, তবে দেখা যাচ্ছে আক্রান্ত অন্তত তিনজনের একজন আইসোলেশন না মেনে বাইরে যাচ্ছেন। তাই তাদের লকডাউন ও আইসোলেসন মানাতে সেনা মোতায়েন করা হবে। কেউ বিধি ভঙ্গ করলে ২০ হাজার ডলার জরিমানা করা হবে। 

তিনি আরও জানান, করোনা মোকাবিলায় অস্ট্রেলিয়া অন্যান্য অনেক দেশের তুলনায় সফল। তবে ভিক্টোরিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তাই আমাদের আরও কঠোর হতে হবে।

মন্তব্য করুন