৪ লাখ রুপি দিয়ে গাড়ি কেনা যায়, চাইলে বড় একটা তহবিলও গঠন করা যায়, কিন্তু তাই বলে একটি গাছ কিনতে খরচ এত টাকা? কথাটা অবিশ্বাস্য শোনালেও নিউজিল্যান্ডে এমনই ঘটনা ঘটেছে। চার পাতাবিশিষ্ট একটা ছোট্ট গাছ অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ৮১৫০ নিউজিল্যান্ড ডলার বা ৪ লাখ রুপিতে। খবর এনডিটিভির

বিরল প্রজাতির র‌্যাফিডোফোরা টেট্রাসপেরমা গাছটি ফিলোডেন্ড্রন মিনিমা নামেও পরিচিত। এর চারটি পাতার প্রত্যেকটিতে দুটি আলাদা রঙ রয়েছে। প্রতিটি পাতায় অদ্ভুতভাবে হলুদ রঙের ছোপ রয়েছে। তাও আবার একেবারে মাঝখান দিয়ে। পাতার অর্ধেকটা সবুজ আর ঠিক অর্ধেকটা হলুদ। ফিলোডেন্ড্রন মিনিমা নামের এই গাছটি সাধারণত ইনডোর প্ল্যান্ট হিসেবেই ব্যবহার করা হয়।

প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, গাছটির অনন্য বৈশিষ্ট্যের কারণে নিউজিল্যান্ডের বৃহত্তম ট্রেডিং সাইট ট্রেড মি-তে রীতিমতো যুদ্ধ শুরু হয়েছিল।  অনেকেই গাছটি কিনতে চাচ্ছিলেন। শেষ পর্যন্ত অন্যদের হারিয়ে নিলামে গাছটি বিক্রি হয় ৮১৫০ ডলারে।

ট্রেড মি সাইটে লেখা ছিল, চারটি পাতায় হলুদ আর সবুজের অদ্ভুত মিশ্রণ দেখতে পাবেন।

জানা গেছে, মোট তিনজন মিলে ওই গাছটি কিনেছেন। তাদেরই একজন জানান, ‘আমরা তিনজন একটা গ্রুপে আছি। আমরা একটা ট্রপিক্যাল বাগান তৈরি করছি। এখানে পাখি আর প্রজাপতি থাকবে। সেই বাগানের মধ্যে একটি রেস্তরাঁও থাকবে। শুধু নিউজিল্যান্ড নয়, এই ট্রপিক্যাল বাগানের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিরল প্রজাতিv গাছ সংগ্রহ করা হবে।’ তিনি আরও জানান, গোটা বিশ্বে এরকম ট্রপিক্যাল বাগান আর কোথাও হয়তো দেখা যাবে না।

মন্তব্য করুন