ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাস্টমস হলের ৫ নম্বর কনভেয়ার বেল্টের পাশে শুক্রবার সকালে একটি ট্রলিতে দুধের ফিডার হাতে কাঁদছিল আট মাস বয়সী এক শিশু। শিশুটির কান্না শুনে সকাল ৯টার দিকে তাকে উদ্ধার করেন এপিবিএন সদস্যরা।

সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরা এক নারী শিশুটিকে বিমানবন্দরে ফেলে গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এপিবিএন জানায়, বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে সৌদি এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজে ওই শিশুকে নিয়ে তার মা বিমানবন্দরে পৌঁছান। সারারাত অ্যারাইভাল বেল্টের পাশে শিশুটিকে নিয়ে বসেছিলেন তিনি। শুক্রবার সকাল থেকে তাকে আর পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে এপিবিএন সদস্যরা সকাল ৯টার দিকে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

শিশুটিকে উদ্ধারের পর এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন (গণমাধ্যম) ওই ফ্লাইটের এক যাত্রীর বরাত দিয়ে জানান, শিশুটির মা কাঁদতে কাঁদতে বলছিলেন, সৌদি আরবে তিনি একজনকে বিয়ে করেছিলেন। এখন ওই লোক বিয়ে অস্বীকার করছেন। সে কারণে লোকলজ্জার ভয়ে শিশুটিকে রেখে তার মা হয়তো কোথাও চলে গেছেন।

তিনি আরও জানান, ভিডিও ফুটেজ দেখে শিশুটির মাকে শনাক্ত করা হয়েছে। শিশুটিকে তেজগাঁও ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।