বৃহস্পতিবার বিভ্রাটের কবলে পড়েছে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম সারির বেশ কিছু ব্যাংকের ওয়েবসাইট। এসব ব্যাংকের তালিকায় রয়েছে এএনজেড, ওয়েস্টপ্যাক, সেন্ট জর্জ, এমই ব্যাংক, ম্যাকোয়ার ব্যাংক, আলিয়ানজ এবং কমনওয়েলথ ব্যাংক। শুধু ওয়েবসাইট নয়, আক্রান্ত হয়েছে ব্যাংকগুলোর ব্যাংকিং অ্যাপও।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার প্রথম ভাগে যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ার একাধিক এয়ারলাইনসও বিভ্রাটের কবলে পড়েছিল। এ তালিকায় ছিল- আমেরিকান এয়ারলাইনস, সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইনস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনস, ডেল্টা এয়ারলাইনস এবং ভার্জিন অস্ট্রেলিয়া। ব্যাংক ও এয়ালাইনসের ওই বিভ্রাটে কোনো সংশ্লিষ্টতা আছে কি না তা এখনও জানা যায়নি।

এ প্রসঙ্গে কমনওয়েলথ ব্যাংক বলেছে, ‘আমরা বুঝতে পারছি আমাদের গ্রাহকরা বর্তমানে নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। এ সমস্যা একাধিক প্রতিষ্ঠানেও হচ্ছে, এর মধ্যে প্রধান অনেক ব্যাংকও রয়েছে।’

এ বিবৃতি দেওয়ার এক ঘণ্টা পর কমব্যাংক এক এক টুইটে জানায়, তাদের সেবা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে। ওয়েব সেবা প্রতিষ্ঠান আকামাইয়ের কারণে সমস্যা হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছেন  অস্ট্রেলিয়ান প্রযুক্তি সমালোচক ট্রেভর লঙ।

উল্লেখ্য, বিশ্বের বৃহত্তম কনটেন্ট সরবরাহ নেটওয়ার্কের একটি আকামাই।

জুনের শুরুতে বিশ্বের আরেক বৃহত্তম সিডিএন ফাস্টলিতে সমস্যা হয়েছিল। সে সময় বিভ্রাটের কবলে পড়েছিল গার্ডিয়ান, নিউ ইয়র্ক টাইমস, অ্যামাজন, এইচবিও ম্যাক্স, রেডিটের মতো খ্যাতনামা সাইটগুলোও।