ভারতের প্রখ্যাত নারীবাদী লেখক, প্রশিক্ষক ও অধিকারকর্মী কমলা ভাসিন মারা গেছেন। শনিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।

কমলা ভাসিনের বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন। খবর দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের 

স্থানীয় অধিকারকর্মী কবিতা শ্রীবাস্তব শনিবার এক টুইট বার্তায় এ খবর নিশ্চিত করেছেন। 

অধিকারকর্মী কবিতা শ্রীবাস্তব টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘আমাদের প্রিয় বন্ধু, কমলা ভাসিন, ২৫ সেপ্টেম্বর ভোর ৩টার দিকে মারা গেছেন। ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে নারী অধিকার আন্দোলনের ক্ষেত্রে এটি একটি বিশাল ধাক্কা।’    

টুইটে কবিতা শ্রীবাস্তব আরও লিখেছেন, তিনি পুরো জীবনটাকে উদযাপন করেছিলেন। কমলা, আপনি আমাদের হৃদয়ে চিরকাল বেঁচে থাকবেন।

১৯৭০ সালের দশক থেকে ভারতসহ পুরো দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে নারীদের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সোচ্চার ছিলেন কমলা ভাসিন। ২০০২ সালে তিনি ‘সঙ্গত’ নামে একটি সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, যা প্রত্যন্ত ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের সুবিধাবঞ্চিত নারীদের নিয়ে কাজ করে।

লিঙ্গ তত্ত্ব, সমতা, মানবাধিকার, পুরুষতন্ত্র নিয়ে লেখা কমলার বইগুলি অন্তত ৩০টি ভাষায় অনূদিত হয়েছে। তার লেখা বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘সতরঙ্গি লাড়কে’, ‘সতরঙ্গি লাড়কিয়া’ ইত্যাদি।

কমলা ভাসিনের জন্ম ১৯৪৬ সালের ২৪ এপ্রিল। দেশভাগের পর তার পরিবার ভারতের রাজস্থানে চলে আসে। রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর করে কমলা চলে গিয়েছিলেন পশ্চিম জার্মানির মুনস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ে। জার্মানির ফাউন্ডেশন ফর ডেভলপমেন্ট ওরিয়েন্টেশন কেন্দ্রে বেশ কিছুদিন কাজ করে কমলা দেশে ফিরে আসেন। বাকি জীবনটা তিনি কাটান দেশের প্রান্তিক নারীদের সমানাধিকারের কথা বলে।