মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুহিইদ্দিন ইয়াসিন দেশটিতে সবার আগে করোনাভাইরাসের টিকা গ্রহণ করবেন।

এই মাসের শেষের দিকে মালয়েশিয়ায় জাতীয় টিকা কর্মসূচি শুরু হবে, তখন প্রথম ব্যক্তি হিসেবে কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ করবেন তিনি। খবর ইউএনবির

দেশটির বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনীমন্ত্রী ও জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচির সমন্বয়মন্ত্রী খয়েরি জামালউদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দেশটিতে ফাইজারের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

বার্নামা টিভি টকশোতে তিনি বলেন, ‘জনগণকে ফাইজারের ভ্যাকসিনটি নিরাপদ বলে আশ্বস্ত করতে প্রধানমন্ত্রী প্রথম ব্যক্তি হিসেবে এই ভ্যাকসিন নেবেন।’

গত ৪ ফেব্রুয়ারি মুহিইদ্দিন বলেন, জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচি মাসের শেষের দিকে শুরু হবে এবং সরকার দেশের ৮০ শতাংশ জনগোষ্ঠী বা ২৬.৫ মিলিয়ন ব্যক্তিকে বিনামূল্যে তিনটি ধাপে এই টিকাদানের লক্ষ্যে কাজ শুরু করবে।

ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত প্রথম ধাপে ৫ লাখ সম্মুখসারির যোদ্ধাকে, যারা সরাসরি কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জড়িত, তাদের টিকা দেওয়া হবে।

এপ্রিল থেকে আগস্টে দ্বিতীয় ধাপে ঝুঁকিপূর্ণ গোষ্ঠী, ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সের প্রবীণ নাগরিক এবং হৃদরোগ, স্থূলতা, ডায়াবেটিস এবং উচ্চ রক্তচাপ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের এই ভ্যাকসিন দেয়া হবে।

মে থেকে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে তৃতীয় ধাপ। এই ধাপে যাদের বয়স ১৮ বা তারও বেশি তাদেরকে টিকার আওতায় আনা হবে।




মন্তব্য করুন