নুসরাত হত্যা মামলা: হাইকোর্টে সিরাজসহ ৪ আসামির আপিল

প্রকাশ: ০২ ডিসেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

নুসরাত জাহান রাফি -ফাইল ছবি

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া ১৬ আসামির মধ্যে চারজনের পক্ষে হাইকোর্টে আপিল করা হয়েছে। সোমবার হাইকোর্টের সংশ্নিষ্ট শাখায় আসমিদের পক্ষে আইনজীবী জামিউল হক ফয়সাল এই আপিল আবেদন দাখিল করেন। আবেদনে বিচারিক আদালতের দেওয়া দণ্ড থেকে আসামিদের খালাস চাওয়া হয়েছে। আসামিরা হলেন- মাদরাসা অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদ দৌলা, নুর উদ্দিন, উম্মে সুলতানা পপি ও জাবেদ হোসেন।

ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাতকে হত্যার দায়ে গত ২৪ অক্টোবর অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলাসহ ১৬ জনের মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত। ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মামুনুর রশিদ এ রায় দেন। চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলা নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে নুসরাতের শ্নীলতাহানি করেন। এ ঘটনায় তার মা শিরিনা আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী থানায় মামলা করলে অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মামলা তুলে না নেওয়ায় ৬ এপ্রিল মাদ্রাসার প্রশাসনিক ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় বোরকা পরা পাঁচ আসামি। ১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অগ্নিদগ্ধ নুসরাতের মৃত্যু হয়। পরে নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান (নোমান) সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়। আলোচিত এই হত্যা মামলায় মাত্র ৩১ কার্যদিবস শুনানির পর রায় দেন ফেনীর আদালত।