গৃহবন্দি মানুষের জন্য নিউজপেপার অলিম্পিয়াডের ব্যতিক্রমী আড্ডা

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

'রিড নিউজপেপার, গেইন নলেজ'- এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু করে ন্যাশনাল নিউজপেপার অলিম্পিয়াড। সংবাদপত্রের প্রতি আগ্রহ বাড়াতেই মূলত একযোগে সারাদেশের বিভিন্ন কার্যক্রম শুরু হয়। ধীরে ধীরে এটি হয়ে ওঠে সবার প্রিয় একটি অলিম্পিয়াড। বর্তমানে মানুষ ভয়ঙ্কর উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে সময় অতিবাহিত করছেন। করোনায় সবাই হয়ে পড়েছের গৃহবন্দি। কোয়ারেন্টাইনের এই দিনগুলোকে একটু আনন্দদায়ক ও শিক্ষণীয় করে তুলতেই নিউজপেপার অলিম্পিয়াডের ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ এনএনও আড্ডা। প্রতিদিন এনএনও আড্ডায় গেস্ট হিসেবে থাকছেন দেশ-বিদেশের বরেণ্য সব ব্যক্তিরা। 

সম্প্রতি গুগলের প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার ও একমাত্র বাংলাদেশি পরিচালক জাহিদ সবুর যোগ দেন এনএনও আড্ডায়। আড্ডাটিতে দর্শক ছিল এক লাখের উপরে। খুব অল্প সময়ের ব্যবধানে এনএনও আড্ডা এখন সবার ভালোবাসার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। বিখ্যাত লেখক কিংকর আহসান, কার্টুনিস্ট অন্তিক মাহমুদ, জাভেদ পারভেজ, ইকবাল বাহারসহ আরও অনেকেই যুক্ত হয়েছিলেন এ আড্ডায়। এছাড়া দেশের বিভিন্ন সেক্টরে প্রতিষ্ঠিত ব্যাক্তিরা এই শো তে যোগ দিচ্ছেন।

গুগলের প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার জাহিদ সবুর বলেন, 'এনএনও পরিবার অনেক ভালো একটি উদ্যোগ হাতে নিয়েছে। আমি তাদের এ কাজকে সাধুবাদ জানাই। করোনার দিনগুলোতে এরকম অনুষ্ঠান সবাইকে অনেক কিছু শিখতে সাহায্য করবে বলে আমি মনে করছি।'

এনএনও আড্ডার হোস্ট নুসরাত সায়েম বলেন, 'দেশ-বিদেশের বিখ্যাত সব ব্যক্তিবর্গ যাদেরকে টিভির পর্দায় দেখতাম তাদের সাথে সরাসরি কথা বলার সুযোগ পাচ্ছি এটা আমার কাছে অন্যরকম এক অনুভুতি। মজার মজার সব অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হচ্ছি প্রতিনিয়ত। কোয়ারেন্টাইনের দিনগুলোতে এরকম আড্ডা সত্যি সবার ক্যারিয়ার ডেভলপমেন্টে অনেক কাজে লাগছে। আমি নিজেও অনেক অনুপ্রাণিত হচ্ছি।'

জাভেদ পারভেজ বলেন, 'এনএনও সবসময় ব্যাতিক্রমী চিন্তা করে। তাদের সাথে যুক্ত হতে পেরে অনেক ভালো লাগছে। আশা করি তারা অনেকদূর এগিয়ে যাবে।'