ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেছেন, ওয়ান ইলেভেনের মামলা সচল করে নির্বাচন থেকে পিছু হটাতে পারবে না সরকার। ধানের শীষের গণজোয়ার দেখে সরকার কূটকৌশল করছে।

বৃহস্পতিবার গণসংযোগকালে তিনি এসব কথা বলেন। 

ইশরাক জানান, ২০০৮ সালে ওয়ান-ইলেভেন সরকারের সময় তখন তিনি ছাত্র ছিলেন। তখন তার বয়স মাত্র সাড়ে ১৮ হবে, মাত্র প্রাপ্তবয়স্ক। ফাস্ট ইয়ারে পড়েন। তখন তার সম্পদের হিসাব চেয়ে নোটিশ দেওয়া হয়। সেই নোটিশের জবাব তিনি দেননি।

তিনি বলেন, ২০১০ সালে বিএনপি তখন তুমুল সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলে। তার বাবা (সাদেক হোসেন খোকা) তখন ঢাকা মহানগর বিএনপির সভাপতি ছিলেন। তখন তাকে চাপে ফেলার জন্য নোটিশের জবাব না দেওয়ায় একটা মামলা হয়। এর কিছুদিন পরে আমি তখনও দেশে আসিনি। তারপরে কী হয়েছে জানি না। কারণ, তিনি তখন দেশে থাকতেন না। 

ইশরাক বলেন, বাবা ওসব দেখতেন। পরবর্তীতে এটার ব্যাপারে কিছু শুনিনি। ২০১৮ সালে যখন তিনি জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য দেশে আসেন, মনোনয়ন জমা দেন এবং ইসিতেও জমা দেন, তখন তড়িঘড়ি করে চার্জশিট তৈরি করে দুদক। তারপর থেকে শুনানি চলছে। এখন আজ যেটা হয়েছে আমি চ্যালেঞ্জ করে আসছি এ মামলাটি। এ মামলা চলতে পারে না।

ইশরাক বলেন, নির্বাচনী প্রচারণায় এটার প্রভাব পড়বে না। এতে কিছুই যায় আসে না। এগুলো মানুষ বোঝে, মানুষ বুঝেছে যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে তাতে সরকার ভীত। হারের ভয়ে যত রকমের কূটকৌশল প্রয়োগ করছে। তিনি এগুলোর তোয়াক্কা করেন না। এগুলো জেনেই তিনি রাজনীতিতে এসেছেন। এতে তিনি বিচলিত হচ্ছেন না।