আজও অমৃতাকে মিস করেন সাইফ

প্রকাশ: ২৩ জানুয়ারি ২০২০     আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২০      

বিনোদন ডেস্ক

ফাইল ছবি

বলিউড তারকা সাইফ আলী খানের সঙ্গে ১৯৯১ সালে তার চেয়ে ১১ বছরের বড় অমৃতা সিংয়ের বিয়ে হয়। সবকিছু ঠিক ঠাক চলছিল তাদের। কিন্তু দুই সন্তান সারা ও ইব্রাহীম আসার পর মনোমানিল্য দেখা দেয়। ২০০৪ সালে হয়ে যায় বিবাহবিচ্ছেদ। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তার জীবনে ঘটে যাওয়া সেই কঠিন পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুললেন সাইফ আলী খান।

মাত্র ২০ বছর বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন সাইফ। তিনি বলেন, ওই সময় তার চেয়ে এগারো বছরের বড় ছিলেন অমৃতা। তার প্রথম বিয়ের সিদ্ধান্ত বাড়ি থেকে মেনে নেওয়া না হলেও, অমৃতা ছিলেন অনেক বেশি পরিণত। প্রথম স্ত্রীর জন্যই তিনি সংসার করতে পারেন বলেও জানান সাইফ।

কিন্তু সারা এবং ইব্রাহিমের জন্মের পর তাদের মধ্যে মনোমালিন্য শুরু হয়। শুধু তাই নয়, সারা এবাং ইব্রাহিমের কাছে গিয়ে নিজেদের বিচ্ছেদের খবর সাইফই প্রথম জানিয়েছিলেন বলেও জানান এ বলিউড অভিনেতা।

তিনি জিনিউজের আরও বলেন, অমৃতার সঙ্গে প্রথম বিয়ে ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়ে এখনও খুশি নন তিনি। শুধু তাই নয়, প্রত্যেক সন্তানই যেমন তাদের বাবা-মা দুজনকেই সব সময় কাছে পেতে চায়, সারা এবং ইব্রাহিমও তাদের বাইরে নয়।

তাই বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের খবরে আর পাঁচজন সাধারণ শিশুর মতোই সারা, ইব্রাহিমও মনের দিক থেকে ভেঙে পড়েছিল বলে জানান সাইফ আলী খান। ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর কারিনা কাপুরকে বিয়ে করেন সাইফ। এই দম্পতির সন্তান তৈমুর আলী খান।