'কলঙ্কিনী রাধা' নিয়ে ভারতে নেটফ্লিক্স বয়কটের ডাক

প্রকাশ: ০২ জুলাই ২০২০     আপডেট: ০৪ জুলাই ২০২০   

বিনোদন ডেস্ক

 ‘কলঙ্কিনী রাধা’ গানটি সিনেমায় ব্যবহার নিয়ে ভারতের হিন্দুত্ববাদীরা বেজায় চটেছেন। অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্সে সম্প্রতি  ‘বুলবুল’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। এতে ওই গানটি ব্যবহার করা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, এই জনপ্রিয় বাংলা লোকগীতির ব্যবহার নিয়ে হিন্দুত্ববাদীরা নেটফ্লিক্স বয়কট করারও ডাক দিয়েছেন। পাশাপাশি অনলাইনে তাদের তোপের মুখে পড়েছেন ছবিটির প্রযোজক আনুশকা শর্মা। 

'বুলবুল' নামে ওই সিনেমায় ব্যবহৃত প্রাচীন বাংলা লোকগীতি ‘কলঙ্কিনী রাধা’ ।

ওই গানে হিন্দুদের ভগবান কৃষ্ণকে 'কানু হারামজাদা' এবং তার লীলাসঙ্গিনী রাধাকে 'কলঙ্কিনী' বলে বর্ণনার বিষয়টি বিশেষত উত্তর ভারতের হিন্দুদের অনেকে নিতে পারেননি। তাদের আক্রমণ ও সমালোচনার মুখে নেটফ্লিক্স ওই মুভির হিন্দি সাবটাইটেলেও কৃষ্ণের বর্ণনায় 'হারামজাদা' শব্দটি পাল্টে 'নটখট' (দুষ্টু) শব্দটি ব্যবহার করেছে। 

তবে আনুশকা শর্মা নিজে বা মুভির নির্মাতা সংস্থা এই বিতর্ক নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি।

বুলবুল নেটফ্লিক্সে রিলিজ হয়  গত ২৪ জুন। রিলিজের পরপরই ‘কলঙ্কিনী রাধা’ নিয়ে শুরু হয় হইচই আর তর্কবিতর্ক।

ভারতের জনপ্রিয় ইউটিউবার ও ''বিগ বস- ১৩'’ র প্রতিযোগী হিন্দুস্তানি ভাউ টুইট করেন, "বুলবুলে যেভাবে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও রাধাকে নোংরা ভাষায় অপমানিত করা হয়েছে, তার জন্য সরকার কি আনুষ্কা শর্মাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করবে?"

আদিত্য অখিল নামে আরও একজন টুইটারে অভিযোগ তোলেন, বিনোদনের নামে চিরকালই বলিউড এভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু সমাজ ও তাদের দেবদেবীদের অপমান করে আসছে।

প্রথমেশ ভাই নামে আরও একজন লিখেন, "প্রথমে পাতাললোক ও এখন বুলবুল - আনুষ্কা শর্মা এমন সব সিরিজ ও মুভিই প্রযোজনা করছেন যেগুলো হিন্দুদের ভাবাবেগকে আহত করে।"