ঢাকা রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪

ফুলকপি না বাঁধাকপি: কোনটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী?

ফুলকপি না বাঁধাকপি: কোনটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী?

ফুলকপি ও বাঁধাকপি

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৩:৪৮ | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৩:৪৮

শীত শুরু হওয়ার সাথে সাথে মৌসুমি শাকসবজিতে বাজার ভরে যায়। শীতের সবজির মধ্যে ফুলকপি-বাঁধাকপি পুষ্টিগুণ ও স্বাদের জন্য সবারই পছন্দের। তবে এই দুই সবজির মধ্যে কোনটি পুষ্টিগুণে সেরা তা নিয়ে নানা তথ্য জানানো হয়েছে ‘ইন্ডিয়া টিভি’র এক প্রতিবেদনে। 

পুষ্টির মান 
ফুলকপি এবং বাঁধাকপি,দুটিই ভিটামিন এবং ফোলেট সমৃদ্ধ পুষ্টিগুণে ভরপুর সবজি। ফুলকপিতে ভিটামিন সি, কে এবং বি৬ রয়েছে, অন্যদিকে বাঁধাকপিতে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে ভিটামিন সি এবং কে রয়েছে। ফাইবারের ভালো উৎস হওয়ায় বাঁধাকপি হজমে সহায়তা করে।

ক্যালরি উপাদান
যারা ক্যালোরি গ্রহণের ব্যাপারে সচেতন তারা ফুলকপি এবং বাঁধাকপি খেতে পারেন। কম কম-ক্যালোরি সম্পন্ন এসব সবজি ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। তবে বাঁধাকপির তুলনায় ফুলকপিতে ক্যালোরির পরিমাণ কিছুটা কম। 

ক্যান্সার প্রতিরোধক যৌগ
ফুলকপি এবং বাঁধাকপিসহ ক্রুসিফেরাস শাকসবজিতে ক্যান্সার প্রতিরোধী বৈশিষ্ট্যে রয়েছে। এসব সবজিতে উপস্থিত সালফোরাফেন ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিতে বাঁধা দেয়। নিয়মিত ফুলকপি এবং বাঁধাকপি খেলে কয়েক ধরনের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। 

হৃৎপিণ্ডের স্বাস্থ্য ভালো রাখে: কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ফুলকপি এবং বাঁধাকপি দুটিই উপকারী । ফুলকপিতে থাকা পটাসিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে, অন্যদিকে বাঁধাকপিতে থাকা ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হৃদরোগের স্বাস্থ্য ভালো রাখে। 

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য: ফুলকপি এবং বাঁধাকপিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান মানসিক চাপ কমায় এবং প্রদাহজনিত ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। ফুলকপি এবং বাঁধাকপিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট নানা ধরনের রোগ প্রতিরোধের ঢাল হিসাবে কাজ করে, ক্ষতিকারক অণুগুলির বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং দীর্ঘমেয়াদী স্বাস্থ্য সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। নিয়মিত ফুলকপি এবং বাঁধাকপি খেলে শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন

×